শনিবার, ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২১, ১২:০৬ অপরাহ্ন

জয়দেব বেরার “দোহা” কবিতা

ধরলা টাইমস
  • প্রকাশের সময় : বুধবার, ১০ জুন, ২০২০
  • ৫২ বার দেখা হয়েছে
জয়দেব বেরা (ভারতবর্ষ,পশ্চিমবঙ্গ,পূর্ব মেদিনীপুর)

জয়দেব বেরার “দোহা” কবিতা:

(ভারতবর্ষ,পশ্চিমবঙ্গ,পূর্ব মেদিনীপুর)

(1)

আশ্বিনের শুক্লপক্ষে হয়েছে মা দুর্গার আগমন,/
দেবী দুর্গা ধরিত্রীতে অবতীর্ণ
হয়েছিলেন মহিষাসুর কে করিতে নিধন।।

(2)

আষাঢ় মাসে রথের মেলা
দেখতে যাব সকলে,/
মেলাতে গিয়ে রথের দড়ি
টানবো মোরা দলে দলে।।

(3)

ওগো মোর মাতা-পিতা,/
তোমরাই আমার জীবনের বিধাতা।।

(4)

পিতা-মাতারা সারাটি জীবন কষ্ট করে/
শুধু জমিয়ে গেছে আমার তোরে।।

(5)

মা – বাবার ভালোবাসার ঋণ/
শোধ করিতে পারবো না কোনো দিন।।

(6)

দে না তোর শরীরের একটুকু তাজা রক্ত,/
তোর রক্ত দানে বেঁচে উঠবে একটি প্রান।।

(7)

রক্ত দান মানে এক জীবন দান,/তাই তো রক্ত দাতাকে জানাই অনেক সম্মান।।

(8)

মা তোর বক্ষের দুগ্ধ দেনা তোর শিশুর মুখেতে,/তোর শিশু ভুগবেনাতো কোনো অপুষ্টিতে।।

(9)

শিশুর কাছে সেরা খাবার হল মাতৃবক্ষের দুধ,/
সব খাবারের উচ্চে থাকে এই খাবারের সুখ।।

(10)

শিশুর কাছে মাতৃ দুগ্ধ হল অমৃতের সমান,/
শিশু গঠনের প্রয়োজনে লাগে মাতৃ দুগ্ধের অবদান।।

(11)

ওগো বসন্ত, তুমি শীঘ্রই প্রকৃতিতে করো আগমন/
তোমারই পথ চেয়ে বসে থাকে এই প্রকৃতি সর্বক্ষণ।।

(12)

চাই আমি সারাজীবন
তোর পাশে থাকতে,/
চাই আমি আজীবন
তোর হাতটা ধরে রাখতে ।।

(13)

তোমার ঐ দুটি নয়ণ আমারে করছে পাগল ও উন্মাদ,/
তাই বসে থাকি সর্বক্ষণ তোমার নয়ণ দুটি দেখব বলে।।

(14)

তুই আছিস আমার হৃদস্পনদনে,/
এই ভাবে থাকবি তুই
সারাটিজীবন আমার ভালোবাসার বন্ধনে ।।

(15)

চাষীর কাছে ক্ষেতের ফসল হল অমৃতের সমান,/
তাই তো বলি,চাষীর উন্নতিতে থাকে এই ফসলের বহু অবদান।।

(16)

আষাঢ়ের এই বর্ষাকালে বৃষ্টি পড়ুক ঝরে…,/বৃষ্টি হলেই সোনার ফসল আসবে কৃষকের ঘরে ।।

(17)

সমাজে ঘটে চলেছে সর্বদাই ধর্ষণ আর ধর্ষণ,/তাই এর বিরুদ্ধে করবো মোরা প্রতিবাদ সর্বক্ষণ।।

(18)

জল বাঁচাও,জলই হলো জীবন/জল না বাঁচালে ,হবে সবার মরণ।।

(19)

করোনা তোমরা নারীর পিরিয়ড কে অসম্মান,/তাই তো বলি, সবাই জানাও পিরিয়ড কে সম্মান।।

(20)

যে দিন আমি থাকবো না এই পৃথিবীর বুকে,/সেই দিনই পৃথিবীতে থাকবে তুমি মহাসুখে।।

আপনার মতামত লিখুন :

এই পোস্টটি আপনার সামাজিক মিডিয়াতে শেয়ার করুন:

এ বিভাগের আরো পোস্ট
© All rights reserved © 2019 Dhorla Time
Design & Developed by Freelancer Zone
themesba-lates1749691102